English Version

ইবিতে একুশের স্মরণে আলোচনা সভা

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

মাথিয়া ঐশী, ইবি: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও অমর একুশে’র স্মরণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের পূর্ব পার্শ্বে আমবাগানের বাংলা মঞ্চে অমর একুশে ফেব্রয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইবির বঙ্গবন্ধু চেয়ার এর অধ্যাপক ও বাংলা একাডেমির সাবেক মহাপরিচালক ড. শামসুজ্জামান খান। রাষ্টবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক শিরিনা বিথীর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো: শাহিনুর রহমান ও কোষাধ্যক্ষ ড. মো: সেলিম তোহা।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অমর একুশে ফেব্রয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদ্যাপন কমিটি-২০২০ এর আহবায়ক ও ছাত্র-উপদেষ্টা প্রফেসর ড. মোহাঃ সাইদুর রহমান।

আলোচনা সভায় উপাচার্য বলেন, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের স্বার্থকতা হলো আমাদের সকল ভাষার রক্ষণাবেক্ষণে খেয়াল রাখতে হবে। বাংলা ভাষায় অনেক উপভাষা রয়েছে। সেসব ভাষার বিভিন্ন বর্ণমালা রয়েছে। অনাদরে অবহেলায় সে ভাষাগুলো যেনো নষ্ট না হয়। আমরা প্রাণ দিয়ে ভাষার মর্যাদা প্রতিষ্ঠা করে এই শিখেছি যে ছোট বড় নির্বিশেষে যে সবার ভাষার জন্য যেকোনো রকমের আত্মত্যাগে আমাদের প্রস্তুত থাকতে হবে।

তিনি আরো বলেন, আমাদের শুধুমাত্র বাংলা আঁকড়ে ধরে বসে থাকলে চলবে না। বাংলা ভাষা এবং সাহিত্যকে যদি আমরা গ্রহের বুকে সঞ্চারিত করতে চাই তাহলে আমাদের নিজেদের ভেতরে অনুবাদক, সাহিত্যিক গড়ে তুলতে হবে।

প্রধান আলোচকের বক্তব্যে অধ্যাপক ড. শামসুজ্জামান খান বলেন, ষোড়শ শতাব্দি থেকে বাংলা ভাষা প্রতিষ্ঠা আন্দোলন শুরু হয়েছিলো। তরুণরা আমাদের ভাষার স্বাধীনতার জন্য এবং মাতৃভূমির অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য যে সংগ্রাম করে আত্মাহুতি দিয়েছিলেন আজকের এই দিনে আমাদের সেরকম আত্মহুতি দিতে হয়তো হবে না, কারণ আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক, স্বাধীনভাবে কথা বলতে পারি। আমাদের ভাষা আন্দোলন দিবস আন্তর্জাতিকভাবে মাতৃভাষা দিবসের স্বীকৃতি পেয়েছে। বিডিটুডেস/এএনবি/ ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

2 × three =