English Version

কম্পিউটার কাজের ক্ষেত্রে চোখের যত্নে যা যা করবেন?

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

বিডিটুডেস ডেস্ক: কম্পিউটার এখন আর বিলাসী কোনো পণ্য নয়, বরঞ্চ নিত্যপ্রয়োজণীয় পণ্য। কাজের প্রয়োজনে কিংবা বিনোদনে কম্পিউটার ছাড়া জীবন কাটানোর কথা আধুনিক জীবনে ভাবাই যায় না। অফিস হোক বা ঘর, ঘণ্টার পর ঘণ্টা কম্পিউটার বা ল্যাপটপের সামনে কেটে যায়। এর খারাপ পড়ে আমাদের চোখে। ফলে চোখে ব্যথা, চোখ লাল হয়ে যাওয়া, মাথা ব্যথা- এরকম বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। সুতরাং চোখের যত্নে কম্পিউটার ব্যবহারের ক্ষেত্রে কিছু বিষয় মেনে চলুন।

* নিয়মিত চোখ পরীক্ষা: যারা কম্পিউটারে নিয়মিত কাজ করেন, তাদের প্রত্যেকের বছরে একবার চোখ পরীক্ষা করানো উচিত। নিয়মিত চোখের পরীক্ষা আপনাকে চোখের সমস্যা থেকে বাঁচাতে পারে। কম্পিউটার ও আপনার চোখের দূরত্ব কতটা হওয়া উচিত ডাক্তারের থেকে তা জেনে নিন।

* সঠিক আলোর ব্যবহার: অভ্যন্তরীণ কোনো উজ্জ্বল আলো বা সরাসরি সূর্যের আলো কম্পিউটারে পড়লে তা চোখ ব্যথার কারণ হতে পারে। কম্পিউটারকে এমনভাবে রাখতে হবে যাতে ঘরের জানালা বরাবর কম্পিউটারের অবস্থান না হয়। মাথার ওপর সরাসরি ফ্লুরোসেন্ট লাইট এড়িয়ে চলা ভালো। এছাড়া স্ক্রিনের উজ্জ্বলতা সহনীয় মাত্রায় রেখে কাজ করা উচিত। উজ্জ্বলতা বেশি হলে চোখের ওপর বেশি চাপ পড়ে এবং অস্বস্তিকর অনুভূতি হয়।

হেলথ টিপস পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

* গ্লেয়ার কমানো: কম্পিউটার মনিটরের আন্টি গ্লেয়ার স্ক্রিন ব্যবহার করে এবং চশমায় অ্যান্টি রিফ্লেকটিভ প্লাস্টিকের কাচ ব্যবহার করলে গ্লেয়ার কমানো যায়। এছাড়া কম্পিউটারের মনিটর যদি পুরনো মডেলের হয়, তবে নতুন মডেলে বদলে ফেলুন। এলসিডি কিংবা এলইডি মনিটর চোখের পক্ষে অনেকটাই ভালো। উচ্চ রেজল্যুশনের স্ক্রিন বেছে নিন। যার ডিসপ্লে অপেক্ষাকৃত বড়।

* সহজে পাঠযোগ্য ফন্টের ব্যবহার: স্ক্রিনে পড়া বা লেখার জন্য ছোট ফন্ট ব্যবহার করবেন না। চোখের জন্য আরামদায়ক ফন্ট নির্বাচন করুন। কারণ ছোট ছোট লেখা চোখের ওপর বেশি চাপ সৃষ্টি করে।

* ঘনঘন চোখের পলক ফেলুন: কম্পিউটারে কাজ করার সময় চোখের পলক পড়া কমে যায়। এর ফলে চোখের পানি কমে যায় ও চোখ শুষ্কতা বা ড্রাই আই হতে পারে। এ অবস্থায় চোখ শুষ্ক বলে মনে হবে। কাঁটা কাঁটা লাগবে। চোখে অস্বস্তি ও ক্লান্তি আসবে। কম্পিউটারে কাজের সময় ঘনঘন চোখের পলক ফেলুন।

* ২০-২০-২০ নিয়ম: চোখ সুরক্ষার জন্য একটি নিয়ম হচ্ছে ২০-২০-২০। অর্থাৎ প্রতি ২০ মিনিট পর পর, ২০ ফুট দূরত্বের কোনো জিনিসের দিকে ২০ সেকেন্ড তাকিয়ে থাক। বিডিটুডেস/আরএ/১১ জুলাই, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

11 − 3 =