English Version

কাপ্তাইয়ে জোরা খুনের মূল ঘাতক গ্রেফতার

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

সুপ্রিয় চাকমা শুভ, রাঙ্গামাটি: রাঙ্গামাটির কাপ্তাইয়ের রাইখালী ইউনিয়নের গবা ছড়া এলাকায় গত বছরের চাঞ্চল্যকর মা-মেয়ে ব্রাশ ফায়ারে ঘটনায় জড়িত মূল ঘাতক মেহলা মারমা ওরফে সানি মারমা (৩৪) কে খাগড়াছড়ি লক্ষিছড়ির এলাকায় এবং মোঃরবিউল আলম ওরফে বাবলু (২২) কে রাঙ্গুনীয়া থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন চন্দ্রঘোনা থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আশ্রাফ উদ্দিন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে তিনি বলেন, গত বছরে ১লা জুলাই দিবাগত রাতে রাইখালী গবা ছড়া এলাকায় শসস্ত্র সন্ত্রাসী কর্তৃক সাই খই মারমা (৬০) ও তার মেয়ে সাংনু মারমা (২৯) কে ব্রাশ ফায়ার করে হত্যা করার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গত শনিবার (২১ মার্চ) খাগড়াছড়ির লক্ষিছড়া এলাকা হতে জোড়া খুনের মূল ঘাতক রাইখালীর নোয়াপাড়া তিনছড়ি এলাকার মৃত ক্যাজহলা মারমা ওরফে পুতুল মারমা পুত্র মেহলা মারমা ওরফের সানি মারমা (৩৪) কে আটক করা হয়। তাকে আটক করতে সহযোগিতা করেন লক্ষিছড়ি থানা পুলিশ ও সেনাবাহিনীর টিম।

তিনি আরোও বলেন, পরে তার স্বীকারোক্তি ও তথ্য মতে জড়িত আসামি মোঃ রবিউল আলম ও বাবু (২২) ও রাঙ্গুনীয়া থানা এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।বাবুল রাঙ্গুনীয়া পদুয়া ইউনিয়নের ছিফছড়ি পাড়ার পশ্চিম কুরশিয়ার মোঃ ইব্রাহিমের ছেলে। এ ঘটনার মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা চন্দ্রঘোনা থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ শফিউ আজম, এসআই মিশন বিশ্বাস, এসআই মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, এ.এস.আই কাউছার হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স সহকারে অভিযান পরিচালনা করেন।

আসামীদ্বয় বিজ্ঞ আদালতের ফৌ.কা.বি.১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রধান করিয়া ঘটনার বিস্তারিত বিবরণ প্রধান করেন বলে জানান, চন্দ্রঘোনা থানার অফিসার ইনচার্জ আশ্রাফ উদ্দিন। রবিবার তাকে রাঙ্গামাটি আদালতে প্রেরণ করা হয়ছে বলেও জানান তিনি। বিডিটুডেস/এএনবি/ ২৫ মার্চ, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

3 + 6 =