English Version

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রজন্ম সমতা বিষয়ক ক্যাম্পেইন

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

নাজমুল সবুজ, কুবি: কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) ইউএন উইমেন এর আয়োজনে দিনব্যাপী নারী উদ্যোক্তা মেলা, প্রদর্শনী বিতর্ক, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং খেলাধুলার মাধ্যমে প্রজন্ম সমতা বিষয়ক ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার (১৫ ডিসেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে আলোচনা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে দিনব্যপী এ ক্যাম্পেইনের শুরু হয়।

নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী রিকি, ইংরেজী বিভাগের আনিকা তাহসীন রাফা এবং ইউএন উইমেন এর নুবাইরার সঞ্ছালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চেীধুরী। এছাড়া ইউএন উইমেন এর প্রোগ্রাম স্পেশালিস্ট জুয়েলিয়া প্যালোসি, নারীপক্ষের সমন্বয়ক তামান্না খান, অস্ট্রেলিয়ার আইনজীবি ভিক্টোরিয়া, ইউএন উইমেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের এর যৌন নিপীড়ন বিষয়ক টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান জান্নাতুল ফেরদৌস, ফোকাল পয়েন্ট ড. তাসনিমা আক্তার, ফার্মেসী বিভাগের প্রভাষক মানতাশা তাবাসসুম এবং প্রশাসনিক কর্মকর্তা নুসরাত জাহান উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, ‘সমাজে যারা এগিয়ে যেতে চায় তাদেরকে একদল নিচে নামানোর জন্য তৈরী হয়ে থাকে। ন্যাচারালি পুরুষের শক্তি নারীদের চেয়ে বেশি। আর সেটাকে কাজে লাগিয়ে অনেক পুরুষ নারীদের উপর নিপীড়ন করছে। আমাদেরকে যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ সজাগ থাকতে হবে।’ জুয়েলিয়া বলেন, ‘আমরা ১৬ দিনের প্রজন্ম সমতা বিষয়ক ক্যাম্পেইন করছি। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনেক নারীই নিপীড়নের শিকার হচ্ছে। ধর্ষণের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।’

নারীপক্ষের সমন্বয়ক তামান্না খান বলেন, ‘রাষ্ট্রে এবং সমাজে নারীরা নিরাপদ নয়। আমরা যতই মুখে বলি যে আমরা প্রগতিশীল হচ্ছি, আসলেই কি আমরা প্রগতিশীল হচ্ছি? পরিবারেও ধর্ষণের শিকার হচ্ছে নারীরা। মুখ ফোটে নারীরা বলতেও পারেনা। নির্যাতনের কথা বললেও তারা সমাজে বিভিন্ন প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হচ্ছে।’

আলোচনা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের ছাত্রীদের অংশগ্রহণে নারী উদ্যোক্তা মেলা পরিদর্শন করে উপাচার্য এবং অতিথিরা। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিবেটিং সোসাইটির সহযোগীতায় যৌন নীপিড়ন প্রতিরোধে একটি প্রদর্শনী বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়। বিতর্কের বিষয় ছিল ‘যৌন সন্ত্রাস প্রতিরোধে সমাজ আন্তরিক নয়।’

এছাড়া বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের আয়োজনে সাংস্কৃতিক সংগঠনের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। ক্যাম্পেইনটির ইভেন্ট প্লানার লি নারীপক্ষ, প্রত্যয় এবং বাংলা কমিউনিকেশন। উল্লেখ্য, বাংলাদেশ জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতা প্রতিরোধ বিষয়ক প্রকল্প(সিজিবিভি) এর আওতায় ১৬ দিনব্যাপী প্রজন্ম সমতা বিষয়ক এ ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়। বিডিটুডেস/এএনবি/ ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

8 − six =