English Version

খুশকি দূর করুন চিরদিনের জন্য….

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

বিডিটুডেস ডেস্ক: অযত্ন-অবহেলায় চুলে খুশকি হয়। এছাড়া শুষ্ক আবহাওয়া, ধুলাবালিও এর কারণ। শরীরে প্রয়োজনীয় পানির অভাব পূরণ না হলেও খুশকি হয়। খুশকির আরো কারণ পেট পরিষ্কার না থাকা। দূরে থাকুক খুশকি: খুশকিমুক্ত চুলের জন্য নিয়মিত পরিচর্যা প্রয়োজন। চুল পরিষ্কার রাখুন। একই সঙ্গে চিরুনি, ব্রাশ, তোয়ালে, বালিশের কাভার, বিছানার চাদর— এগুলো সাফ-সুরত রাখুন। কখনই অন্যের এ জিনিসগুলো ব্যবহার করবেন না। নিজেরটাও করতে দেবেন না।

মাসে একবার পারলারে গিয়ে হেয়ার ট্রিটমেন্ট করান কিংবা হেয়ার স্পা করুন। দিনে আট গ্লাস পানি পান করুন। এক দিন পর পর চুলে শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। ঘরে বসে খুশকি দূর করতে হেয়ার প্যাক ব্যবহার করুন। সপ্তাহে এক দিন মেহেদি, ডিম ও টকদই মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে স্কাল্পে লাগিয়ে ১ ঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু করুন। এছাড়া লেবুর রস স্কাল্পে লাগিয়ে কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন। পেঁয়াজের রসও লাগাতে পারেন। খুশকি হলে যেহেতু চুল নিষ্প্রাণ হয়ে পড়ে, তাই শ্যাম্পু করার পর ৫ লিটার পানিতে অল্প ভিনেগার মিশিয়ে সে পানি চুলে ঢালুন। চুল উজ্জ্বল ও ঝরঝরে হবে।

হেলথ টিপস পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

সিল্কি করতে চার কাপ পানিতে এক চা চামচ চায়ের পাতা ফুটিয়ে ঠাণ্ডা করে ছেঁকে সে পানি দিয়ে চুলে ধুয়ে ফেলুন। কিছু পরমর্শ নিয়মিত হট অয়েল ম্যাসাজ করুন পারলারে গিয়ে চুল পরিচর্যা সম্ভব না হলে ঘরেই প্যাক তৈরি করে ব্যবহার করুন তেলের সঙ্গে জবাফুল ও আমলকী দিয়ে ১০ মিনিট জ্বালান। তেল ঠাণ্ডা হলে ছেঁকে রেখে দিন। এ তেল ব্যবহার করুন, চুল পড়া বন্ধ হবে। শ্যাম্পু কেনার সময় ভালো ব্র্যান্ডের হারবাল শ্যাম্পু কিনুনবাইরে যাওয়ার সময় চুল খোলা না রাখাই ভালো। এতে চুলে ময়লা কম হবে, সমস্যাও কম হবে। ভেজা চুল কখনো বেঁধে রাখবেন না। এতে খুশকি হবে। বিডিটুডেস/আরএ/১১ জুন, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

3 × 3 =