English Version

চিতাবাঘকে মৃত ভেবে সেলফি তুলতে গিয়ে বিপত্তি….

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

ছবি অনলাইন

বিডিটুডেস ডেস্ক: রাস্তার ধরে পড়ে আছে চিতাবাঘ। সবাই ভাবছে, বড় রাস্তায় গাড়ির ধাক্কায় মৃত্যু হয়েছে সেই বাঘের। মানু্ষের স্বভাব, উৎসাহ ভরে চিতার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে মোবাইলের ভিডিও অন করে এগিয়ে গেছেন অনেকেই। কিন্তু কেউ তখনও ভাবেননি, বাঘের ছুঁলে আঠারো ঘা লেখা আছে কপালে। মোবাইল হাতে সাহসে ভর এগিয়ে যাওয়া যুবকটি আয়ত্বের মধ্যে এসে পড়ার পরেই সর্বশক্তি দিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে বাঘটি। অতর্কিত হামলায় কিছু বোঝার আগেই কামড়ে দেয় ওই যুবকের ঘারে। প্রাণের দায়ে তখন উৎসাহী জনতা পিঠটান দিয়েছে।

আর ওই যুবক বড় রাস্তার ধারের শুকনো ঘাসপাতা জড়ানো মাঠে প্রাণপণে বাঘের থেকে প্রাণ বাঁচাতে হাত ছুড়ে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করছেন। আর মনে মনে যেন বলছেন ‘‌তুমি যে এ ঘরে কে তা জানত’‌। নেহাত বাঘটি আহত, তাই শেষ পর্যন্ত কোনওমতে সেটির মুখ থেকে বেঁচে ফিরতে সক্ষম হন ওই যুবক। সোমবার সকাল ৮টা নাগাদ ভারতের আলিপুরদুয়ারের ফালাকাটার বীরপাড়ায় জাতীয় সড়কের কাছে শালধুয়া এলাকায় রাস্তা পার করছিল চিতাবাঘটি।

হেলথ টিপস পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

সেই সময় একটি ট্রাক ধাক্কা দিলে জখম হয় সেটি। তারপর থেকে আহত অবস্থায় রাস্তায় পড়েছিল সেটি। আর সেটিকেই পরে দেখতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা। কিন্তু বাঘের সঙ্গে রঙ্গ করে ছবি তুলে গিয়েই ঘটে বিপত্তি। পরে অবশ্য ঘটনাস্থলে হাজির হন বনদপ্তরের কর্মীরা। চিতাবাঘটিকে উদ্ধার করে আনেন। জানা গিয়েছে, আহত চিতাবাঘটি পূর্নবয়স্ক ও স্ত্রী। বাঘের আঘাতে আহত হয়ে এখন যুবকটি চিকিৎসাধীন। ‌বিডিটুডেস/আরএ/১৯ আগস্ট, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

three + twenty =