English Version

জবি শিক্ষার্থী মুনিরের মুক্তির দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ, জবি: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) এর হিসাববিজ্ঞান বিভাগের ১৪তম আবর্তনের শিক্ষার্থী মুনির হোসেনের মুক্তির দাবিতে প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। রবিবার (১৯ জুলাই, ২০২০) সকাল ১০.৩০ থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি শুরু করে শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধন এ অংশগ্রহণ করা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মো.ফয়সাল বলেন, জবি শিক্ষার্থী মনির হোসেনকে একটি মিথ্যা মামলায় যেভাবে ফাঁসানো হয়েছে তার প্রতিবাদে আজ আমরা এই করোনাকালীন মহামারীকে উপেক্ষা করেও রাজপথে নেমেছি।

যদি তাকে নিঃশর্তভাবে মুক্তি না দেওয়া হয় তাহলে আমরা আরও জোরালো অবস্থানে যাবো সেক্ষেত্রে কোনো বাধাকেই আমরা গ্রাহ্য করবো না। অন্যায়ের বিরুদ্ধে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সর্বদা সোচ্চার এর প্রমাণ অতীতে আমরা অনেকবার দিয়েছি। একটি সুন্দর জীবন ধ্বংস হোক তা আমরা চাই না, হতেও দেবো না তার জন্য যথা সম্ভব আমরা করে যাবো।

মানববন্ধনে অংশ নেয়া জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শরীয়তপুর জেলা ছাত্রকল্যাণের সাধারণ সম্পাদক ডি এম বখতিয়ার বলেন, মনির আমাদের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের একজন নিয়মিত ছাত্র। এই লকডাউন এর জন্য সে যখন গ্রামের বাড়িতে ছিল এবং তখন এই হত্যা ঘটনায় পুলিশ তাকে অজ্ঞাতনামা আসামি হিসেবে আটক করে নিয়ে যায়। আমরা দোষী পুলিশ সদস্যের শাস্তি এবং এ বিষয়ে সরকারের সুদৃষ্টি আশা করছি এবং অনতিবিলম্বে মনির এর মুক্তি দাবি জানাচ্ছি।

এদিকে জানা যায়, শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার ভোলাই মুন্সিকান্দি গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে রিয়াজ মাদবর (১৭) নামে এক কিশোর নিহতের ঘটনায় গত শনিবার জাজিরা থানা পুলিশ বিনা অপরাধে মুনিরকে গ্রেপ্তার করে এবং মামলা দিয়ে কোর্টে চালান করে দেয়। গত বৃহস্পতিবার জেলা দায়রা জজ আদালতে জামিন আবেদন করলে আদালত তা নাকচ করে দেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামালকে মানববন্ধন এর ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, প্রেসক্লাবে একটা মানববন্ধন হয়েছে আমি শুনেছি। আমি বলতে চাই আমার ছাত্র যাতে ন্যায়বিচার পায়, সে যাতে কোনো ধরনের হয়রানির শিকার না হয়। বিডিটুডেস/এএনবি/ ১৯ জুলাই, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

twelve − nine =