English Version

জলঢাকায় জেলা পরিষদ সদস্যের পিতার করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

মহিনুল ইসলাম সুজন, নীলফামারী: নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে জেলা পরিষদের সদস্য মোশারফ হোসেনের পিতা আলহাজ্ব মজিবর রহমানের (৮০) মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (১ জুন) ভোরে নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃতের বাড়ী জলঢাকা উপজেলার গোলমুন্ডা ইউনিয়নের তিলাই গ্রামে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জলঢাকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডাঃ আবু হাসান রেজওয়ানুল কবীর।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, নিহত মজিবর রহমানের সহধর্মিণী কয়েকদিন আগে রংপুর মেডিকল কলেজে ক্যান্সারের চিকিৎসা করতে গিয়ে করোনা আক্রান্ত হন। করোনা রোগীর সংস্পর্শে আসায় গত ২৭ মে ঐ পরিবারের ১৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করে জলঢাকা স্বাস্থ্য বিভাগ।

গত ৩০ মে শনিবার নিহত মজিবর রহমানসহ নাতী বউয়ের করোনা পজেটিভ আসে। এরপর থেকে পরিবারের ৩ সদস্যকে নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা প্রদান করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার ভোরে তিনি ইন্তেকাল করেন। তিনি হাই প্রেসারের রোগী ছিলেন।

স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আরো জানান, এ পর্যন্ত উপজেলায় মোট আক্রান্ত ১৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ২ জনের। এর মধ্যে ৪ জন সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরেছেন। দুইজন নীলফামারী সদর হাসপাতাল ও ১ জনকে জলঢাকা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রেখে চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে। একজন করোনা নিয়ে ঢাকায় কর্মরত আছে এবং বাকি ৩ জনকে হোম আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, নীলফামারী জেলায় এ নিয়ে ১২৯ জন করোনা আক্রান্তের মধ্যে ৩ জন মৃত্যুবরন করলেন। ৩৮ জন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ্য হয়ে নিজ-নিজ বাড়ি ফিরেছেন। বিডিটুডেস/এএনবি/ ০১ জুন, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

thirteen − seven =