English Version

ডোমারে শিশু অমিতকে বাচাঁতে বাবা মায়ের আকুতি

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

হরিদাস রায়, ডোমার (নীলফামারী): যখন বই হাতে স্কুলে যাওয়ার কথা অমিতের, যখন বন্ধুদের সাথে খেলতে যাওয়ার কথা ছিল অমিতের সেই সময় দুরারোগ্য ব্যাধির করাল গ্রাসে ফুটফুটে অমিতের জীবন প্রদীপ আজ নিভে যেতে বসেছে। আপনাদের সামান্য সহযোগীতায় বেচেঁ যেতে পারে অমিতের জীবন। লেখাপড়ার শুরুতেই কিডনীরোগে আক্রান্ত হয়ে জীবনের সাথে যুদ্ধ করছে সে। হতদরিদ্র পিতার একমাত্র আদরের সন্তানকে বাঁচাতে ইতিমধ্যে তাদের সর্বস্ব খুইয়ে আজ তারা সর্বশান্ত।

এখন তাদের ভরসা বিত্ত্বশালী স্বহৃদয়বান ব্যক্তিদের উপর। আপনাদের একটু সহানুভুতিই বাঁচাতে পারে শিশু অমিত (১০) এর জীবন। সে বর্তমানে কিডনির জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু বিভাগের নেপ্রলজি শাখায় ড. ওলিয়ার রহমানের চিকিৎসাধীন রয়েছে। তার চিকিৎসায় প্রচুর অর্থের প্রয়োজন। অমিতের পিতা ডোমার পৌর এলাকার ছোটরাউতা সাহাপাড়া গ্রামের দয়াল ভৌমিক। দিনে আনে দিনে খায় তাদের পরিবার। তারপরও দরিদ্র বাবা তাদের সর্বচ্চটুকু বেঁচে তার সন্তান অমিতকে বাচাতে সব রকম চেষ্টা চালিয়ে আসছেন।

তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরে ছেলের চিকিৎসা করে আমি এখন নিস্ব। কোনো সহৃদয়বান ব্যাক্তি আমার শিশুটিকে বাঁচাতে সাহায্য করলে আমি তাদের প্রতি চির কৃতজ্ঞ থাকবো। আমি প্রধান মন্ত্রিসহ দেশের সকল বিত্ত্বশালী ব্যক্তিদের কাছে সাহায্যের আবেদন করছি। আপনাদের সাহায্য ও সহযোগিতায় ফিরে পেতে পারি আমার সন্তানের জীবন। এ বিষয়ে ছোটরাউতা সাহাপাড়া, পৌরসভা, ডোমার, নীলফামারী এই ঠিকানায় যোগাযোগের অনুরোধ করেন শিশু অমিতের পরিবার। বিডিটুডেস/এএনবি/ ১৭ অক্টোবর, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

10 + 12 =