English Version

তৈরি সুস্বাদু দই পোলাও ইফতারে

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

বিডিটুডেস ডেস্ক: মাছ-মাংস একাধিক পদ সাইড ডিশে থাকলেও মেন কোর্স নিয়ে অনেকেরই চিন্তা থেকে যায়। কারণ সেই পোলাও বা বিরিয়ানি ছাড়া ভাতের আর কী করা যেতে পারে এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজে পান না অনেকেই। পোলাও মানেই যেন মিঠা পোলাও নয়তো সেই পিস পোলাও  (কড়াইশুটি দিয়ে পোলাও)। কুব বড়জোর নবরত্ন পোলাও। কিন্তু এর বাইরেও অনেক রকম  পোলাও হয় য়ার মধ্যে অন্যতম ও জনপ্রিয় দই পোলাও। দই পোলাওয়ে মূল উপকরণ দই হলেও এতে নানা রকমের সবজি থাকবে। শুধু এখটু  সাবধানতার সঙ্গে রান্না করতে হবে পোলাওটি ব্যস ওই পর্যন্তই । নয়তো খুব সহজেই বানানো যায় এই দই পোলাও। যা চেনা পরিচিত স্বাদের থেকে একটু ভিন্ন হলেও একেবারে অজানা নয়। তাহলে আসুন দেখে নেওয়া যাক কী কী লাগবে দই পোলাও বানাতে।

উপকরণ
চাল – ৫০০ গ্রাম
দই – ২৫০ গ্রাম
পেঁয়াজ – ২টি (স্লাইস)
সবজি – ১ কাপ (আলু, বিন, গাজর ছোট ছোট টুকরো, কড়াইশুটি )
গোটা গোল মরিচ – ৬ টি
লবঙ্গ – ২টি
এলাচ – ২টি
তেজপাতা – ১টি
দারচিনি – ১ ইঞ্চির একটি টুকরো
কাজুবাদাজ – ৮-১০টি
কিশমিশ – ৩-৬টি
কেশর – এক চুটকি
হলুদ খাবার রং – কয়েক ফোঁটা
নুন – স্বাদমতো
ঘি – ৪ টেবিল চামচ

প্রণালী:
একটি পাত্রে ১ টেবিল চামচ ঘি গরম করে নিন। তাতে কাজু ও কিশমিশ হাল্কা হাতে ভেজে নিন।ভাজা হয়ে গেলে কাজু ও কিশমিশ তুলে নিন। ওই ঘিতেই আরও ২ টেবিল চামচ ঘি দিন। তাতে তেজপাতা, লবঙ্গ, এলাচ, দারচিনি দিয়ে ভাজুন ১ মিনিট। ঘিয়ে গোটা মশলাগুলির গন্ধ চলে এলে তাতে, পেঁয়াজ দিয়ে মিনিট ৩-৪ মাঝারি আঁচে ভাজুন। এতে সবজি দিয়ে আরও ২-৩ মিনিট ভাজুন। এতে দই দিয়ে দিন। দই দেওয়ার আগে আঁচ কমিয়ে দেবেন নয়তো দই ফেটে যেতে পারে।পুরো চালটাকে একটি কাপের হিসাবে দিন। জল দিন তার ঠিক দ্বিগুন। অর্থাৎ যদি চাল ৪ কাপ হয় তাহলে ওই একই কাপের ৮ কাপ জল দেবেন। এতে গোল মরিচ দিয়ে দিন।চালটা দইয়ের মিশ্রণে দিয়ে ভাল করে নাড়াচাড়া করে মিশিয়ে দিন।এতে এবার জলটা দিয়ে দিন।এতে স্বাদ মতো নুন দিন। খাবাররের রং দিয়ে দিন জলে।জলটা ফুটতে শুরু করলে কাজু ও কিশমিশ দিয়ে দিন।এবার ঢাকা দিয়ে দিন। জল শুকিয়ে ভাচ রান্না হয়ে গেলেই তৈরি দই পোলাও।

গুরুত্বপূর্ণ বিষয়: পোলাওয়ে জলের মাপটাই আসল। ভাত হয়ে যাওয়ার পরে যদি দেখে মনে হয় চাল শক্ত থেকে যাবে, তা হবে না। ভাত হয়ে গেলেও ঢাকা দিয়ে রেখে দেবেন। ভাপে ভাপেই আরও কিছুটা  সিদ্ধ হয়ে যাবে। পোলাও হয়ে গেলে অন্য পাত্রে সরিয়ে তারপর ঢাকা দেবেন। নয়তো যে পাত্রে রান্না হয়েছে তার  তাপ অনেক বেশি থাকে ফলে চাল বেশি সিদ্ধ হয়ে যেতে পারে। পরিবেশনের আগে বাকি ১ চামচ ঘি উপর থেকে ছড়িয়ে দেবেন। পরিবেশন করার সময় হাতা দিয়ে বেশি ঘাটবেন না। তাহলে চালও ভেঙে যেতে পারে আর সবজিও। বিডিটুডেস/আরএ/১২ মে, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

19 + 11 =