English Version

নওগাঁয় আদিবাসী কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে একজন গ্রেফতার

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

জি এম মিঠন, নওগাঁ: নওগাঁর মহাদেবপুর থানা পুলিশ (১৮ জানুয়ারী) শনিবার এক আদিবাসী কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে খমেজ উদ্দিন (৫৫) নামে এক ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত খমেজ উদ্দিন মহাদেবপুর উপজেলার রাইগাঁ ইউনিয়নের কুন্দনা গ্রামের কছির উদ্দিনের ছেলে। সে ৪ বছর আগে তার শ্বশুড়বাড়ী এনায়েতপুর বাজারে একটি টিনের ঘুমটিতে পানের দোকান করে বসবাস করে আসছেন।

ধর্ষণ চেষ্টার শিকার আদিবাসী কিশোরীর মা অভিযোগ করেন যে, তার মেয়ে (১২) এনায়েতপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। সে গত বৃহস্পতিবার সকাল ৬ টায় প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় এনায়েতপুর বাজারে খমেজ উদ্দিনের দোকানের সামনে পৌঁছলে খমেজ তাকে জোড় করে রাস্তা থেকে তুলে তার দোকানের ভিতর নিয়ে গিয়ে দোকানের দরজা বন্ধ করে তার স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়াসহ তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। মেয়েটি কান্না শুরু করলে খমেজ তাকে বিষয়টি কাউকে না জানানোর হুমকি দিয়ে ছেড়ে দেয়। কাউকে জানালে তাকে হত্যার হুমকি দেয়।

স্বাস্থ্যের খবর জানুন

ওই দিন মেয়েটি প্রাইভেট না পড়ে বাড়ী ফিরে গিয়ে কাঁদতে থাকে ও স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দেয়। বাড়ীর লোকজন বিষয়টি জানার চেষ্টা করলে পরদিন রাতে সে তার চাচিকে বিষয়টি জানায়। শনিবার সকালে এব্যাপারে তার মা বাদী হয়ে মহাদেবপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। থানা পুলিশ বেলা ১০ টায় খমেজকে তার দোকান থেকে গ্রেফতার করে নিয়ে আসে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মহাদেবপুর থানার ওসি নজরুল ইসলাম জুয়েল জানান, আদিবাসী কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে তার মা (১৮ জানুয়ারী) শনিবার সকালে থানায় ঘটনার বর্ণনাদেন ও মামলা দায়ের করলে সাথে সাথে পুলিশ পাঠিয়ে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং ভিকটিম কিশোরীর জবানবন্দী রেকর্ড করা হয়েছে। বিডিটুডেস/এএনবি/ ১৮ জানুয়ারি, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

thirteen − 6 =