English Version

নওগাঁয় খড়বাহী ট্রাকে অগ্নিকাণ্ড, পুড়ে গেলো একটি পরিবারের সপ্ন

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

জি, এম মিঠন, নওগাঁ: নওগাঁয় সপ্ন পূরণে ঋণের টাকায় কেনা ট্রাকে খড় বহনের সময় অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে গেল একটি পরিবারের সপ্ন।বিদ্যুতের তারের সাথে স্পর্স হয়ে অগ্নিকাণ্ডে একটি খড়বাহী ট্রাক পুড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসময় গ্রামের কতিপয় লোকজন উত্তেজিত হয়ে খড়বাহী ট্রাকের আগুন নিয়ন্ত্রণ করার উদ্যোগ না নিয়ে উল্টো ট্রাকে উচু করে খড় বহন করার অভিযোগে ট্রাকের চালককে গণধোলাই দিয়েছে।

ঘটনার সংবাদ পেয়ে প্রথমে ফায়ার সার্ভিস এ সংবাদ দিয়ে মহাদেবপুর থানা ও নওহাটামোড় ফাঁড়ি পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে গণধোলাইয়ে আহত চালককে উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠিয়ে দেন এবং আগুন নিয়ন্ত্রণের জন্য স্থানিয়দের সহযোগীতা চাইলেও কেউ সহযোগীতায় এগিয়ে না আসলে অবশেষে মহাদেবপুর থেকে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউফনিট ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেন। কিন্তু আগুন নিয়ন্ত্রণ করার পূর্বেই খড়সহ ট্রাকটি পুড়ে যায়। সেই সাথেই পুড়ে যায় একটি পরিবারে সপ্নও।

এ ঘটনাটি ঘটেছে, (১১ নভেম্বর) সোমবার দুপুর দের টার দিকে নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার চৌমাশিয়া-ধনজইল পাকা রাস্তার নলোবলো নামক স্থানে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নওহাটামোড় পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ এস আই ফরিদ জানান, খবর পেয়ে প্রথমে ফায়ার সার্ভিসে সংবাদ দেয়াসহ ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে পৌছে দেখি খড়বাহী ট্রাকটিতে দাউ-দাউ করে আগুন জ্বলছে। এসময় অনেক লোকজন ঘটনাস্থলে দাঁড়িয়ে-দাড়িয়ে পুড়ে যাওয়ার দৃশ্য দেখলেও কেউ আগুন নিয়ন্ত্রণের উদ্যোগ নেয়নি, এমনকি আমি সহ আমাদের পুলিশেরা বলার পরও কেউ আগুন নিয়ন্ত্রণে সহযোগীতা করেননি বরং পুলিশ পৌছার পূর্বে স্থানিয় লোকজন উল্টো ঐ ট্রাকের চালক বাবু হোসেন (২৮) কে গণধোলাই দেয়ায় ঘটনাস্থলেই মারান্তক জখম অবস্থায় পড়ে ছিলো দেখতে পেয়ে তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছেন এস আই ফরিদ।

স্থানিয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আজ নতুন নয়। ট্রাকে খড় ব্যবসায়ীরা অতিরিক্ত বেশী উচুকের খড় সাঝিয়ে নিয়ে যাওয়ার কারণে ইতিপূর্বে ৩/৪বার আগুন ধরার কারণে আমাদের অনেক ভোগান্তী পোহাতে হয়েছে। এমনকি বিদ্যুতের তার ছিরে যাওয়ার কারণে বিদ্যুৎ বিহীনও থাকতে হয়েছে। এব্যাপারে মহাদেবপুর থানার ওসি নজরুল ইসলাম জুয়েল বলেন, ঘটনার সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে ফাঁয়ার সার্ভিসে খবর দেয়াসহ পুলিশকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, আগুন নিয়ন্ত্রণ না করে চালককে গণধোলাই দেয়ার ঘটনাটি ক্ষতিয়ে দেখে জরীতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অগ্নিকাণ্ডের সংবাদ পেয়ে ছুটে ঘটনাস্থলে এসে কান্নারত অবস্থায় ফায়ার সার্ভিসের সাথে ট্রাকের মালিক নিজেও আগুন নিয়ন্ত্রণের আপ্রাণ চেষ্টা করেও একমাত্র সম্পদ রক্ষা করতে পারেননি ট্রাকের মালিক মহাদেবপুর উপজেলার উত্তর গ্রামের মৃত আফজাল হোসেনের ছেলে লিকসন (২৮)। একই সময় ঘটনাস্থলে ট্রাকের মালিক লিকসনের স্ত্রীও চোখের সামনে তাদের সপ্ন ট্রাকটি পুড়তে দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পরেন।

উল্লেখ্য- মহাদেবপুর উপজেলার উত্তরগ্রামের মৃত আফজাল হোসেনের ছেলে লিকসন কয়েক মাস পূর্বেই নিজস্ব টাকার সাথে আরো ৩ লাখ টাকা ঋণ করে সারে ৮ লাখ টাকায় (খুলনা মেট্রো-ড-১১-০১৩৪) নাম্বার একটি পুরাতন ট্রাক কিনেন। কিন্তু তার ভাগ্যে সইলোনা পুড়ে গেল তার সেই সপ্ন। বিডিটুডেস/এএনবি/ ১১ নভেম্বর, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

1 × four =