English Version

পাকিস্তান ১১টি জঙ্গি ঘাঁটি বন্ধ করল

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

বিডিটুডেস ডেস্ক: বালাকোটের ধাঁচে ফের হানা দিতে পারে ভারত, সেই ‘শঙ্কা’ থেকেই পাক অধিকৃত কাশ্মীরে কম করে ১১টি জঙ্গি ক্যাম্প বন্ধ করে দিয়েছে পাকিস্তান। নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, আপাতত এই এলাকায় সন্ত্রাসবাদী কাজকর্ম বন্ধ রাখার। এর মধ্যে জৈশ-ই-মহম্মদ, লস্কর-ই-তৈবার ক্যাম্পও রয়েছে। বালাকোটের ধাঁচে ফের হানা দিতে পারে ভারত, সেই ‘শঙ্কা’ থেকেই পাক অধিকৃত কাশ্মীরে কম করে ১১টি জঙ্গি ক্যাম্প বন্ধ করে দিয়েছে পাকিস্তান। নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, আপাতত এই এলাকায় সন্ত্রাসবাদী কাজকর্ম বন্ধ রাখার। এর মধ্যে জৈশ-ই-মহম্মদ, লস্কর-ই-তৈবার ক্যাম্পও রয়েছে। যদিও, ভারতের সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত এই খবরের সত্যতা নিয়ে কিছু বলতে চাননি। তাঁর বক্তব্য, পাকিস্তান জঙ্গিদের ক্যাম্প বন্ধ করেছে কি না তার সত্যতা খতিয়ে দেখার কোনও উপায় নেই। সেই কারণে সীমান্তে পাহারা আগে যেমন ছিল, এখনও তেমনই থাকবে। তাতে কোনও বদল হবে না।

বহু বছর ধরেই সন্ত্রাসের আঁতুড়ে পরিণত হয়েছে পাক অধিকৃত কাশ্মীর। এখানে শুধুমাত্র একাধিক জঙ্গি সংগঠনের শিবির-ই নেই, অসংখ্য ‘লঞ্চপ্যাড’ও আছে, যেগুলো ভারতে জঙ্গি ঢোকানোর জন্য ব্যবহার করা হয়। প্রথম সার্জিক্যাল স্ট্রাইকে এগুলোকেই নিশানা করা হয়েছিল। তবে কি ফের কোনও অভিযানের পরিকল্পনা করছে নয়াদিল্লি? তেমন কোনও খবর এখনও পর্যন্ত আসেনি। তবে তার আগেই পাকিস্তান সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিচ্ছে বলে একাধিক সূত্রের দাবি।

হেলথ টিপস পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

এই ১১টি জঙ্গি শিবিরের ৫টি পিওকে-র মুজফ্ফরাবাদে, ৫টি কোটলিতে এবং একটি বারনালায়। ভারতের সুন্দরবনি এবং রাজৌরি সেক্টরের কাছে যে শিবিরগুলি ছিল সেগুলি বন্ধ করা হয়েছে। এগুলি মূলত লস্করই চালাত বলে সূত্রগুলির দাবি। পালা এবং বাগে জৈশের ক্যাম্পগুলিতেও ঝাঁপ পড়েছে। হিজবুল মুজাহিদিনের পিওকে-র শিবিরও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। গত দু’মাস ধরে এই প্রক্রিয়া চলছে বলে মনে করা হচ্ছে। পর্যবেক্ষকদের একাংশের মতে, বালাকোট অভিযানের পর আন্তর্জাতিক মহলের হাতে ভারত যে সব তথ্য-প্রমাণ তুলে দিয়েছে তাতেই স্পষ্ট যে কী ভাবে ভারতের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস চালানোর জন্য পাকিস্তানের মাটি ব্যবহার করা হচ্ছে এবং কী ভাবে তাতে মদত দিচ্ছে পাক সেনা এবং সে দেশের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই। এই অবস্থায় আন্তর্জাতিক মহলের চাপে পড়ে ভারত যদি ফের কোনও কঠোর পদক্ষেপ নেয়, সে কথা ভেবেই সম্ভবত পাকিস্তানের এমন সিদ্ধান্ত।সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত অবশ্য এই খবর থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন। তিনি এটিকে সত্য কিংবা মিথ্যা কিছুই বলতে চাননি। বিডিটুডেস/আরএ/১১ জুন, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

11 − one =