English Version

প্রধানমন্ত্রী আন্তরিকভাবে কৃষকের কল্যাণে কৃষির কল্যাণে কাজ করেন: কৃষিমন্ত্রী

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

নাজমুস সাকিব মুন, পঞ্চগড়: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্তরিকভাবে কৃষকের কল্যাণে কৃষির কল্যাণে কাজ করেন। তিনি কৃষির প্রতি দরদী একজন মানুষ। তার পিতাও ছিলেন কৃষক দরদী মানুষ। বুধবার বিকেলে কৃষিমন্ত্রী কৃষিবিদ ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে প্রজনন বীজ উৎপাদন কেন্দ্রের আয়োজনে অনুষ্ঠিত এক কৃষক সমাবেশে এই কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু সব সময় কৃষক-কৃষির উন্নয়নে কাজ করেছেন। কৃষকের বঞ্চনা নিয়ে কাজ করেছেন, কৃষকের দুঃখ দুর্দশা নিয়ে কথা বলেছেন। তার কন্যাও কৃষির জন্য অনেক কিছু করছেন।

আজকের সমাবেশে উপস্থিত থাকতে পেরে মন্ত্রী নিজের ভাললাগার কথা জানাতে গিয়ে বলেন, আমাদের বিজ্ঞানীরা ঢাকা থেকে এসে কত উঁচু মানের কাজ করছেন এই প্রজনন বীজ উৎপাদন কেন্দ্রে। আপনারাও তাদের সহযোগিতা করেন। এজন্য আমি অত্যন্ত আনন্দিত। কৃষিমন্ত্রী আরও বলেন, দেবীগঞ্জের প্রজনন বীজ উৎপাদন কেন্দ্রে গবেষণা করে উন্নত জাত উদ্ভাবন করে সারাদেশে ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। এটা দেবীগঞ্জবাসীর গর্ব।

মন্ত্রী বলেন, আগে কৃষি এদেশে উন্নত ছিল না। কৃষি ছিল খুবই অবহেলিত। কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ১৯৯৬-২০০১ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকার সময় তিনি কৃষির উপর সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন। তিনি সারের দাম কমিয়েছেন, তিনি কৃষি ঋণ বাড়িয়েছেন। বর্তমানে কৃষিকে যান্ত্রীকরণ করতে কৃষি যন্ত্রপাতি দেয়া হচ্ছে। কৃষি আর কৃষকের উন্নতির জন্য তিন হাজার কোটি টাকার প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। এই বরাদ্দ থেকে কৃষি যন্ত্র ক্রয়ে কৃষকদের ভর্তুকি দেয়া হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী এইজন্য সবসময় বলেন বাংলাদেশের উন্নয়ন করতে হলে আগে কৃষির উন্নতি করতে হবে।

তিনি বলেন, গত নির্বাচনে আমরা স্লোগান দিয়েছিলাম আমার গ্রাম আমার শহর। আমরা গ্রামকে শহর করতে চাই। তার জন্য বিদ্যুৎ দিয়েছি বিদ্যুৎ এখন বাংলাদেশে উদবৃত্ত, রাস্তা-ঘাট করেছি, চার লেন রাস্তা হচ্ছে, আমরা পদ্মা সেতু করেছি দেশের টাকায়। উদবৃত্ত বিদ্যুতে আমরা শিল্প কারখানা করব। যে শিল্পকারখানায় আমাদের তরুনদের কর্মসংস্থান হবে।

বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিউটের মহাপরিচালক ড. মোঃ নাজিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং দেবীগঞ্জ প্রজনন বীজ কেন্দ্রের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা দিপঙ্কর বর্মনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মেসবাহুল ইসলাম, বিএডিসি’র চেয়ারম্যান মোঃ সায়েদুল ইসলাম, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান কৃষিবিদ ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার,

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ ডা. মোঃ আসাদুল্লাহ, জেলা প্রশাসক ড. সাবিনা ইয়াসমিন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ, ইউএনও প্রত্যয় হাসান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক চিশতী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীসহ উপজেলা ও পৌরসভা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। বিডিটুডেস/এএনবি/ ২৮ জানুয়ারি, ২০২১

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

five × 1 =