English Version

বড়াইগ্রামে হোম কোয়ারেন্টাইনে ৪৭ জন, দোকান-পাট বন্ধ

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

অমর ডি কস্তা, নাটোর: নাটোরের বড়াইগ্রামে নতুন করে আরও ১৫ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এ নিয়ে উপজেলায় মোট ৪৭ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আনোয়ার পারভেজ।

এছাড়া হোম কোয়ারেন্টাইনের মেয়াদ শেষ হওয়ার কারনে বেশ কয়েকজনকে রিলিজ দেয়া হয়েছে। করোনা ভাইরাস আতঙ্কে সীমিত হয়ে আসছে উপজেলার সকল কার্যক্রম। বুধবার সকাল থেকে বন্ধ হয়ে গেছে বনপাড়া, আহমেদপুর, রাজাপুর, লক্ষীকোল, জোনাইলসহ সকল হাট-বাজারের দোকানপাট ও বিপনিবিতানগুলো।

সীমিত আকারে খোলা রয়েছে শুধুমাত্র নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দোকানপাট। তবে ঔষধের দোকান ও মাছ-শাকসব্জির দোকানগুলো খোলা রয়েছে এবং তাতে ভীড় লক্ষ্য করা গেছে। নাটোর-বনপাড়া-পাবনা, বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়ক, বনপাড়া-লালপুর আঞ্চলিক সড়কসহ গ্রামিণ সড়কগুলোতে যানবাহন ও যাত্রীসংখ্যা খুবই কম। যার ফলে সড়কগুলো অনেকটাই ফাঁকা পরিলক্ষিত হচ্ছে।

বনপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ তৌহিদুল ইসলাম জানান, আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে বিভিন্ন কার্যক্রম। পুলিশ প্রশাসনও রয়েছে মাঠে। বড়াইগ্রাম কেন্দ্রীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি অমর ডি কস্তা জানান, সাধারণ মানুষকে বোঝাতে মাঠে নেমেছে বড়াইগ্রাম কেন্দ্রীয় প্রেসক্লাব ও উপজেলা প্রেসক্লাবের সাংবাদিক সদস্যরাা। বিডিটুডেস/এএনবি/ ২৫ মার্চ, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

5 × 2 =