English Version

ভিডিও কনফারেন্সে সোলার বিদ্যু কেন্দ্র উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

ছবিতে ভিডিও কন্ফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাপ্তাইয়ে সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

মাহফুজ আলম, কাপ্তাই: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বহুমুখী উৎপাদনের মাধ্যমে আমরা বিদ্যুৎ উৎপাদন করে যাচ্ছি। এ পর্যন্ত দেশে ২২ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে সক্ষম হয়েছি। বিদ্যুৎ উৎপাদন আর সঞ্চালন লাইন উন্নতমানের করছি। যেসব এলাকায় গ্রীড লাইন নাই সেখানে সোলার প্যানেল করে দিচ্ছি। সারা দেশের শতভাগ বিদ্যুৎ উৎপাদনের যা যা করার বর্তমান সরকার করে যাচ্ছে। এছাড়াও তিনি আরো বলেন, বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে যে টাকা খরচ হয়, গ্রাহকদের কাছ থেকে কিন্তু আমরা সেই টাকা নেই না, বিদ্যুৎ উৎপাদনে আমরা ভুর্তুকি দিচ্ছি, কাজেই বিদ্যুৎ যেভাবে সাশ্রয় হয় সেটি সেভাবে খেয়াল রাখবেন, দয়া করে আপনারা প্রত্যেকেই বিদ্যুৎ ব্যবহারে মিতব্যয়ী হবেন।

গণভবন থেকে ভিডিও কন্ফারেন্সের মাধ্যমে ১২ সেপ্টেম্বর বুধবার দুপুর সোয়া ১২টার সময় রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এক আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাপ্তাইয়ে স্থাপিত সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। এরই মাধ্যমে কাপ্তাইয়ে সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্রের যাত্রা শুরু হলো। কাপ্তাইয়ে সরকারি উদ্যোগে দেশের প্রথম সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপিত হলো। সরকারি পর্যায়ে দেশের প্রথম সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্র প্রধানমন্ত্রীর শুভ উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে। ৭.৪ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতা সম্পন্ন এই কেন্দ্রটি ১২ সেপ্টেম্বর বুধবার জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে ভিডিও কন্ফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। পুরোদমে উৎপাদনে যাওয়া শুরু হলো এই বিদ্যুৎ কেন্দ্রের। এই কেন্দ্র বিদ্যুৎ যাবে জাতীয় গ্রীডে এবং রাঙ্গামাটি, কাপ্তাই, বিলাইছড়ি, রাজস্থলী ও চন্দ্রঘোনা এলাকায়।

আগামী ২০২০ সালের মধ্যে দেশের মোট বিদ্যুৎ উৎপাদন ১০ ভাগ যোগান দেবে নবায়নযোগ্য কেন্দ্রগুলো। তার অংশ হিসেবে কাপ্তাইয়ে স্থাপিত করা হয়েছে ৭.৪ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতার এই সোলার প্ল্যান্ট কেন্দ্রটি। কাপ্তাই জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান বাঁধ সংলগ্ন ২০ একর জায়গার উপর এ কেন্দ্রের কাজ শুরু হয় ২০১৭ সালের ৯ জুলাই। প্রায় দুই বছর কাজ শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধনের পর এখন পুরোদমে উৎপাদন শুরু হলো, যা এখন জাতীয় গ্রীডে যোগ হলো কাপ্তাইয়ের সোলার বিদ্যুৎ। এই সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ২৪ হাজার ১২টি প্যানেল ব্যবহার করা হচ্ছে বলে সূত্রে জানা গেছে। এ প্রকল্পটি এশিয়া উন্নয়ন ব্যাংক ও বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে ব্যয় করা হয়েছে প্রায় ১১০ কোটি টাকা।

প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কন্ফারেন্সের মাধ্যমে কাপ্তাইয়ে সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শুভ উদ্বোধন ঘোষণার সময় উপস্থিত ছিলেন, রাঙ্গামাটি ২৯৯ আসন সাংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার, জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ, পুলিশ সুপার মোঃ আলমগীর কবির, কাপ্তাই পানি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের (বিউবো) ব্যবস্থাপক এটিএম আব্দুজ্জাহের, রাঙ্গামাটি পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী, সোলার প্ল্যান্ট প্রকল্পের পিডি মো: ফারুক, উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো: জাহাঙ্গীর হোসেন। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন স্তরের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গগণ উপস্থিত ছিলেন। বিডিটুডেস/এএনবি/ ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

seventeen − 10 =