English Version

মরমী কবি হাছন রাজা ও গানের সম্রাট বাউল কামাল পাশা স্মরণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পন্ন

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

আল-হেলাল, সুনামগঞ্জ: করোনা সংক্রমণ ঝুঁকির প্রেক্ষিতে ভার্চুয়াল প্রোগ্রামের মধ্যে দিয়ে সুনামগঞ্জে পঞ্চরত্ন বাউলের প্রধান দুই মরমী সাধক কে স্মরণ করা হয়। এরা হচ্ছেন মরমী কবি হাছন রাজা ও গানের সম্রাট বাউল কামাল পাশা (কামাল উদ্দিন)। তাদের স্মরণে জেলা শিল্পকলা একাডেমীর উদ্যোগে ভার্চুয়াল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।

এতে দিরাই থেকে বাউল আলীনূর, সিলেট থেকে বাউল বিরহী কালা মিয়া, সুনামগঞ্জ থেকে বাউল কামাল পাশা সংস্কৃতি সংসদ এর প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক সাংবাদিক বাউল আল-হেলাল, শিল্পকলা একাডেমীর সংগীত প্রশিক্ষক দিপায়ন চৌধুরী চয়ন, শিল্পী মাকসুদুর রহমান দীপু,হদয় আহমেদ ও শিশু শিল্পী অদিত চৌধুরী সংযুক্ত হয়ে সংগীত পরিবেশন করেন।

সুনামগঞ্জ জেলা শিল্পকলা একাডেমির জেলা কালচারাল অফিসার আহমেদ মঞ্জুরুল হক চৌধুরী পাভেল এর উপস্থাপনায় ও গীতিকার নির্মল কর জনির সহযোগীতায় অনুষ্ঠিত এই অনুষ্ঠানে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় অংশ নিয়ে সাংবাদিক আল-হেলাল মরমী কবি হাছন রাজা ও গানের সম্রাট বাউল কামাল পাশার গানের পৃষ্টপোষকতায় সুনামগঞ্জ মহুমা শিল্পকলা একাডেমীর প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক ভাষাসৈনিক আব্দুল হাই হাছন পছন্দকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন।

অনুষ্ঠানে “ধন্য তারিখ ৬ ডিসেম্বর” “দীন দুনিয়ার মালিক খোদা এত কষ্ঠ সয়না তোমার দিলকি দয়া হয়না’”, “আপে আল্লাহ রব জলিল পাটাইলেন জিবরাইল” “বৃথা জনম গেলরে ভাবিয়া জনম গেলরে পাইলামনা দরদিয়া শ্যাম” “মন পাগলরে দিল পাগলরে পাগল হইলে কার লাইগারে” “সোনা মাইগো মাই বিয়া করাইয়া মোরে বানাইলায় জামাই” ইত্যাদি কামালগীতি ছাড়াও মরমী কবি হাছন রাজার প্রায় ৬টি গান পরিবেশন করা হয়।

আলোচনায় আসে “চাইনা দুনিয়ার জমিদারী কঠিন বন্ধুরে”, “সাজিয়ে গুজিয়ে দে”, “কাঙ্কের কলসী জলে গিয়াছে ভাসি” ও ‘প্রেমের মরা জলে ডুবেনা’সহ গানের সম্রাট বাউল কামাল পাশার আরো অনেক মূল্যবান গানের কথা। বিডিটুডেস/এএনবি/ ০৭ ডিসেম্বর, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

twelve + nine =