English Version

মেয়েকে শিকলে বেধেঁ ভিক্ষা করছেন মা

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

শরীফ আহমেদ মজুমদার, কুমিল্লা: ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক। মহাসড়কের কুমিল্লার চান্দিনা বাসস্ট্যান্ড। প্রতিবন্ধী মেয়েকে শিকলে বেঁধে এক বৃদ্ধা মা ভিক্ষা করছেন। কেউ এক-দুই টাকা দিচ্ছেন। কেউ মা-মেয়ের করুণ জীবন যাপন নিয়ে ভাবছেন।

হোসনে আরা আক্তার। বয়স ৩৫ বছর। জন্ম থেকে বাক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী। তার বাড়ি কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার নবীয়াবাদ গ্রামে। বাবা আবদুল আজিজ মারা গেছেন অনেক আগেই। তিন বোন দুই ভাই। দুই বোনের বিয়ে হয়েছে। ভাই দুইজনের আর্থিক অবস্থা ভালো নয়। মেয়েকে শিকলে বেঁধে দুই বছর ধরে ভিক্ষা করছেন সুফিয়া বেগম। কোনো বিধবা ভাতা বা বয়স্ক ভাতা তিনি পাননি। মেয়েটিও কোনো প্রতিবন্ধী ভাতা পায়নি।

স্বাস্থ্যের খবর জানুন

মা-মেয়ের এমন করুণ অবস্থা দেখে চান্দিনার মাদরাসা শিক্ষক মাসুমুর রহমান মাসুদ বলেন, প্রতিবন্ধী মেয়েকে বৃদ্ধা মা শেকলে বেঁধে ভিক্ষা করছেন। এই দৃশ্য অমানবিক। আর কত খারাপ অবস্থায় পড়লে মা ও মেয়ে ভাতা পাবে। দুইজনের ভাতার ব্যবস্থা হলে তারা একটু ভালো জীবন যাপন করতে পারতো। সুফিয়া বেগম বলেন, হোসনে আরা তার প্রথম সন্তান। বড় আদরের সন্তান। এতো দিন পথে ঘাটে ঘুরতো। তাই বাধ্য হয়ে শিকলে বেঁধে সঙ্গে রেখে ভিক্ষা করছেন। সরকারের সাহায্য পেলে তদের কষ্ট কম হতো বলে তিনি জানান। বিডিটুডেস/এএনবি/ ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

fourteen + eleven =