English Version

ময়মনসিংহের মাছ চাষিরা উৎপাদনে খুশি

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

বিডিটুডেস ডেস্ক: ময়মনসিংহে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে শতশত মাছের খামার গড়ে ওঠায় জেলার চাহিদার চেয়ে তিনগুণ বেশি মাছ উৎপাদন হচ্ছে। ভাগ্য বদলেছে হাজার হাজার মানুষের। অবশ্য টানা কয়েক বছর লাভের মুখ না দেখলেও এবার ভালো দাম পাচ্ছেন বলে জানান মাছ চাষিরা। তবে খাবারের উচ্চমূল্য ও নিম্নমান এবং মাছের বিপণন নিয়ে বেকায়দায় রয়েছেন খামারিরা।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা জানান, ত্রিশালে একটি মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ময়মনসিংহ জেলায় মোট বাণিজ্যিক মাছের খামার রয়েছে প্রায় ৬,৩৭১টি, এসব খামারে মাছ উৎপাদন হয় ৪,৪৮,৮৮২ মেট্রিক টন। চাহিদা রয়েছে: ১,১৬,৩৫৮ মেট্রিক টন ও উদ্বৃত্ত আছে ৩,৩২,৫২৪ মেট্রিক টন। এ জেলায় মৎস্য চাষি রয়েছেনে ১,১১,৬৯৫ জন।

গত অর্থবছরে ময়মনসিংহ জেলায় প্রায় সাড়ে চার লাখ মেট্রিক টন মাছ উৎপাদন হয়েছে। যা জেলার চাহিদার চেয়ে প্রায় তিনগুণ। বাণিজ্যিকভাবে মাছ চাষ করে এলাকার অনেক মানুষের ভাগ্য বদলে গেছে। এদিকে, টানা কয়েকবছর লাভের মুখ না দেখলেও এবার মাছের ভালো দাম পাচ্ছেন বলে জানান চাষিরা। তবে খাবারের উচ্চমূল্য ও নিম্নমান নিয়ে বেকায়দায় রয়েছেন তারা। মৎস্য খামারিরা বলছেন, এই অঞ্চলে প্রচুর মাছ উৎপাদন হলেও সুষ্ঠু বাজার ব্যবস্থাপনার অভাবে বেচাকেনায় সমস্যায় পড়তে হচ্ছে তাদের।

তবে নিয়মিত মাছের খাবারের মান তদারকি করা হয় দাবি করেন ত্রিশাল উপজেলার মৎস্য কর্মকর্তা তোফায়েল আহমেদ। এ মৎস্য কর্মকর্তা জানান, একটি মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। জেলা মৎস্য অফিস সূত্রে জানা গেছে, দেশের মোট মাছের ১১ ভাগ উৎপাদন হয় ময়মনসিংহ জেলায়। আর পাঙ্গাসের মোট উৎপাদনের প্রায় ৫০ ভাগই হয় এখানে। সূত্র: সময়, বিডিটুডেস/এএনবি/ ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

18 − fifteen =