English Version

রবির ডাটা প্যাকে এখনও মেলেনি জবির অনুদান

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

মেহরাবুল ইসলাম সৌদিপ, জবি: মহামারি করোনায় অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীরা রেজিস্ট্রেশন ও ব্যবহারের শর্তাবলী সাপেক্ষে ১৯৯ টাকার ৩০ জিবি ডাটা প্যাকেজের মধ্যে- শিক্ষার্থীরা ৯৯ টাকা প্রদান করবে এবং বাকী ১০০ টাকা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ রবি’কে সরাসরি প্রদান করবে বলে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ও রবি’র মধ্যে এক সমঝোতা স্মারক চুক্তি হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রেজিস্ট্রেশন ও ব্যবহারের শর্তাবলী সাপেক্ষে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করার পর ‘রবি’ রেজিস্ট্রেশনকৃত মোবাইল নম্বরে ডাটা প্যাকেজে অন্তর্ভূক্ত হওয়ার কনফার্মেশন ম্যাসেজ প্রদান করবে। অতঃপর শিক্ষার্থীরা ১৯৯ টাকা রিচার্জ করবে এবং ইউএসএসডি কোড (*১২৩*৭৭৩৩#) ডায়েল করে বিশ্ববিদ্যালয় ও ‘রবি’ প্রদত্ত সুবিধাটি উপভোগ করা যাবে। তবে রেজিস্ট্রেশনের পর সময়মতো এসএমএস পাওয়া ও প্যাকেজটি কেনার পর ১০০ টাকা ফেরত পাচ্ছেন না জানান ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা।

অন্যদিকে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা জানায়, রেজিস্ট্রেশনের এক সপ্তাহ পর ডাটা প্যাকটি ক্র‍য়ের এসএমএস আসলেও ফিরতি ১০০ টাকা তারা পরবর্তী এক সপ্তাহে ও পায় নি। বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের শিক্ষার্থী মাহফুজ জানায়, তার রবি সিমের নাম্বার ও আইডি নাম্বার দেয়ার প্রায় আট দিন পর তার ফোনে ডাটা প্যাকটি ক্রয়ের জন্য এসএমএস আসে।

এরপর সে তার সিমে নির্দেশনা অনুযায়ী ১৯৯ টাকা রিচার্জ করলে তার ফোনে আবার ও ৩০ জিবি ডাটা প্যাকটি ক্রয়ের কনফার্মেশন এসএমএস আসে। কিন্তু তার ফোনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তুকি দেয়া ১০০ টাকা রিচার্জ আসেনি। এমনকি এসএমএসটি ঢাবির ডাটা প্যাক নামে তার ফোনে এসেছে।

অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী অভিজিত ডাটা প্যাকটির জন্য রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করে সাত দিন পর এসএমএস পেলেও ১০০ টাকা ফেরত দেয়া হচ্ছে না শুনতে পেয়ে ডাটা প্যাকটি ক্রয় করতে আগ্রহ প্রকাশ করেননি।

এদিকে দায়িত্বে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ কমিটির সদস্য সচিব কাজী মো: নাসির উদ্দীনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমার কাছে শুধু টাকার হিসাব থাকে, আমি অর্থ দপ্তরে আছি। আর কিছু বলতে পারবো না। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইটি দপ্তরে যোগাযোগ করেন। আমার এখানে কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই।

বিশ্ববিদ্যালয় যেই টাকাটা রবিকে দেবে সেটা আমি দেখবো। ওরা যেদিন চাইবে আমি সেদিন টাকাটা দিয়ে দিবো। এটা ভেরিফাইয়ের একটা বিষয় আছে। কেউ রেজিস্ট্রেশন করলো কিন্তু ডাটা প্যাকটি ক্রয় করলো না সেক্ষেত্রে সমস্যা হতে পারে। সেটা যাচাই-বাছাই করে দিতে হবে।

শিক্ষার্থীদের ১০০ টাকা কবে নাগাদ ফেরত দেয়া হবে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের নেটওয়ার্ক ও আইটি দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার আচার্য্য বলেন, একজন একজন করে তো টাকা দেয়া সম্ভব নয়, রবির ইন্টারনেট প্যাকটি যারা একটিভ করেছে তাদের তালিকা হয়ে গেলে একসাথে সবার টাকা দেয়া হবে। সেটা কবে নাগাদ দেয়া হবে তা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানেন।

সমস্যাগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো: ওহিদুজ্জামানকে জানানো হলে তিনি দায়িত্বে থাকা অর্থ কমিটির সদস্য সচিব কাজী মো: নাসির উদ্দীনের সাথে কথা বলে ব্যবস্থা নেবেন বলে আশ্বাস দেন।

উল্লেখ্য যে, শিক্ষার্থীকে প্রথমবার বান্ডেলটি কিনতে ১৯৯ টাকা প্রদান করতে হবে (সরকারী নীতিমালা অনুসারে) এরপর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ রবি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে নাম্বার শেয়ার করার সাথে সাথে ‘রবি’ শিক্ষার্থীর মোবাইল নাম্বারে-এ ১০০ টাকা রিচার্জ পাঠিয়ে দিবে। উক্ত ১০০ টাকা জবি’র পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের অনুকূলে ভর্তুকি হিসেবে ‘রবি’-কে প্রদান করা হবে।বিডিটুডেস/এএনবি/ ২২ নভেম্বর, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

12 − six =