English Version

রিয়াল ছাড়তে চান ক্ষুব্ধ গ্যারেথ বেল

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

বিডিটুডেস ডেস্ক: চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দলে জায়গা না পাওয়ায় ক্ষুব্ধ গ্যারেথ বেল আগামী গ্রীষ্মের দলবদলেই রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে যেতে চান। স্প্যানিশ পত্রিকা এএস জানায়, ৩০ বছর বয়সি বেল মনে করছেন যথেষ্ট হয়েছে। গত সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের খেলায় ক্লাব ব্রাগার বিরুদ্ধে বেলকে দলে রাখেননি কোচ জিনেদিন জিদান। কিন্তু ওয়েলশ ফরোয়ার্ড বেলকে খেলাটিতে দরকার ছিল। পরে স্পেনের এক টেলিভিশন শো দেখায় যে ক্ষুব্ধ বেল রিয়ালের খেলাটি শুরুর ৪ মিনিট পর বার্নাব্যুতে আসেন।

কোচ জিনেদিন জিদানের আগের মেয়াদেও তার সঙ্গে শীতল সম্পর্ক ছিল বেল এর। এটা আবারও বোঝা যাচ্ছে ফিট থাকার পরও খেলার দিন জানিয়ে দেওয়া দলে তার না থাকায়। সমস্যা আছে খেলোয়াড়টিরও। ইনজুরির কারণে তিনি নিজেও অনেকবার দলে আসা-যাওয়ার মধ্যে ছিলেন। গত মঙ্গলবারের খেলাটিতে ক্লাব ব্রাগার সঙ্গে দুই গোলে পিছিয়ে পড়ার পর রিয়াল সার্জিও র্যামোস ও ক্যাসেমিরোর বদান্যতায় সমতা ফেরাতে সক্ষম হয়।

স্বাস্থ্যের খবর জানুন

জিদান অবশ্য এ দফায় রিয়ালে যোগ দিয়েও পরোক্ষে বেলকে নিয়ে তার মনোভাবের কথা জানিয়ে দেন। সেজন্য বেলও গেল দলবদলের সময়ে চলে যেতে চেয়েছিলেন। একাধিক দল তার ব্যাপারে আগ্রহও দেখিয়েছিল। কিন্তু এই ক্লাবগুলোর একটি চীনের সুপার লিগের দল জিগাংসু সানিং যাত্রায় বাগড়া দিয়েছে রিয়ালই। খেলোয়াড়টিকে বড়ো অঙ্কের বেতন দিতে রাজি হলেও তার জন্য রিয়ালের চাহিদা মতো ফি দিতে রাজি হয়নি জিগাংসু। এতেই আটকে যায় তার দলবদল। রিয়াল সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ বেলের জিগাংসু-যাত্রা আটকে দেওয়ার ক্ষেত্রে বড়ো ভূমিকা পালন করেছিলেন বলে সে সময় খবর বেরিয়েছিল।

কারণ হিসেবে বলা হয়, পেরেজ মনে করেন সস্তায় ছেড়ে দেওয়ার মতো খেলোয়াড় বেল নন। শেষ ছয় বছরে অনেকবারই ওয়েলস ফরোয়ার্ডের তারিফ করেছেন পেরেজ। এছাড়াও বেলকে আটকানোর পেছনে রিয়াল মাদ্রিদে খেলোয়াড়দের ইনজুরিও বড়ো ভূমিকা রেখেছে বলে মনে করা হচ্ছিল। উল্লেখ্য, রিয়াল ২০১৩ সালে সে সময়ের রেকর্ড ১০০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে টটেনহ্যাম হটস্পার থেকে বেলকে দলে ভিড়িয়েছিল। সূত্র: ইত্তেফাক, বিডিটুডেস/এএনবি/ ০৯ অক্টোবর, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

4 − one =