English Version

শাহজাদপুরে আবারও সরকারি চাউল পাচারকালে আটক ৪

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

মাসুদ মোশাররফ, সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরি থেকে জামিরতার জগতলা দিয়ে মোটর চালিত ৪টি অটোভ্যানে করে আবারও পাচারকালে দরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত সরকারি ১০ টাকা কেজি মূল্যের ৩৭ বস্তা চাউল আটক করে জনতা।

খবর পেয়ে সহকারি কমিশনার (ভূমি) মোঃ মাসুদ হোসেন ও শাহজাদপুর থানার উপ-পরিদর্শক এসআই আসাদ সহ পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ৪ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

আটককৃত অটো চালকেরা হলো- শাহজাদপুর উপজেলার ভেড়াকোলা গ্রামের মোঃ মোস্তফা প্রামাণিকের ছেলে আব্দুল মতিউর (৩০), একই গ্রামের মোঃ লতিফ প্রামাণিকের ছেলে মুসা প্রামাণিক (১৫), পাবনা জেলার বেড়া উপজেলার চর-পেচাকোলা গ্রামের মোঃ জাকের মোল্লার ছেলে শওকাত আলী (১৪) ও একই গ্রামের সাইদ আলী (৪০)।

জানা যায়, গত বুধবার (২৫ নভেম্বর) বিকাল সাড়ে ৪টায় উপজেলার জামিরতার জগতলা নতুন বাজার এলাকা দিয়ে ৪টি অটোরিক্সা বোঝাই করে চাউল নিয়ে যাওয়ার সময় সন্দেহ হলে স্থানীয়রা গাড়ি থামিয়ে জিজ্ঞাসা করলে তাদের কথায় অসংগতি মনে হয়। পরে ৩৭ বস্তা সরকারি ১০ টাকা কেজি মূল্যের চাউলসহ ৪ জনকে আটক করে স্থানীয়রা শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহি অফিসার শাহ মোঃ শামসুজ্জোহাকে অবগত করেন।

সন্ধ্যায় সহকারি কমিশনার (ভূমি) মোঃ মাসুদ হোসেন ও শাহজাদপুর থানার উপ-পরিদর্শক এসআই আসাদ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সহকারি কমিশনার (ভূমি) মোঃ মাসুদ হোসেনের নির্দেশে ৪ অটো চালককে আটক ও চাউল জব্দ করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

সরেজমিনে গিয়ে অটো চালকদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা জানায়, উপজেলার কৈজুরী ইউনিয়নের চর-কৈজুরী গ্রামের গ্রাম পুলিশ মোঃ রমজান প্রামানিকের ছেলে আব্দুল মতিন (৪২) কৈজুরী বাজার সংলগ্ন নজরুলের বাড়ি থেকে চাউলের বস্তাগুলো তাদের অটো গাড়িতে তুলে দিয়েছে। চাউলগুলো ভেড়াকোলা গ্রামের সরকারি চাউলের ডিলার আমীনের কাছে যাওয়ার কথা ছিলো।

পরে স্থানীয় সাংবাদিকদের অনুসন্ধানে সরকারী চাউল কালো বাজারি আব্দুল মতিনের কৈজুরী স্কুলমাঠ সংলগ্ন একটি গোডাউনের সন্ধান পাওয়া যায়। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা, সহকারি কমিশনার (ভূমি) মোঃ মাসুদ হোসেন ও শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিদ মাহমুদ খানকে জানানো হয়।

পরে বুধবার আনুমানিক রাত ৯ টায় সহকারি কমিশনার (ভূমি) মোঃ মাসুদ হোসেন ও শাহজাদপুর থানার উপ-পরিদর্শক এসলাম আলীর নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় সহকারি কমিশনারারের উপস্থিতিতে পুলিশ মতিনের গোডাউনের তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। এ সময় ৩ বস্তা সরকারি ১০ টাকা কেজি দরের চাউল ও ৩৬টি সরকারি চাউলের খালি বস্তা উদ্ধার করা হয়।

সহকারী কমিশনার ভূমি মোঃ মাসুদ হোসেন জানান, সরকারি ১০ টাকা কেজি দরের চাউল কালোবাজারির সাথে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়ায় গ্রাম পুলিশ রমজান ও তার ছেলে মতিন উভয়ের নামেই মামলা হবে। বিডিটুডেস/এএনবি/ ২৬ নভেম্বর, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

five × three =