English Version

হেলিকপ্টারে গুরুতর আহত ইউএনওকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

তারিকুল ইসলাম চৌধুরী, দিনাজপুর: দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমের অবস্থা খুবই আশংকাজনক। দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত হয়ে এখনো অচেতন অবস্থায় রয়েছেন। তার শরীরে আঘাত থাকায় বড় ধরনের অস্ত্রোপচার করা দরকার। এজন্য উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টার যোগে তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

এর আগে আজ বৃহস্পতিবার (৩ আগস্ট) রাত আড়াইটার দিকে নিজ সরকারি বাসভবনে হামলার শিকার হন গোড়াঘাট উপজেলার নির্বাহী অফিসার ওয়াহিদা খানম। আবাসিক ভবনে ঢুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে দুর্বৃত্তরা। এ সময় তার পিতা অমর আলীকেও কুপিয়ে আহত করে তারা।

বর্তমানে ইউএনও ওয়াহিদা খানম রংপুর ডক্টরস ক্লিনিকে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন। সেখান থেকে তাকে ঢাকায় আনা হচ্ছে। এদিকে তার পিতাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলার ঘটনায় উপজেলা পরিষদ চত্বর ঘিরে রেখেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

দিনাজপুর-৬ আসনের সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক, দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম, পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন ঘটনাস্থলে উপস্থিত রয়েছেন। জানা গেছে, রাত আনুমানিক আড়াইটায় উপজেলা পরিষদের নির্বাহী অফিসারের আবাসিক ভবনে ঢুকে পড়ে একদল দুর্বৃত্ত।

এ সময় ইউএনও ওয়াহিদা খানমকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে শুরু করে। এ সময় তার চিৎকারে সঙ্গে থাকা পিতা ছুটে এসে মেয়েকে বাঁচানোর চেষ্টা করলে দুর্বৃত্তরা তাকেও জখম করে। পরে অন্য কোয়াটারের বাসিন্দারা টের পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় পরে এ সময় তাদেরকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দ্রুত গোড়াঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নিয়ে যাওয়া হয়।

সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাদেরকে রংপুরে প্রেরণ করা হয়। ইউএনও ওয়াহিদা খানমকে রংপুর ডক্টরস ক্লিনিকে আইসিইউতে ও রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘোড়াঘাট থানার ওসি আমিরুল ইসলাম জানান, ‘ঠিক কি কারণে ঘটনা ঘটেছে তা এখন কিছুই জানা যায়নি। জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে। বিডিটুডেস/এএনবি/ ০৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

11 + 18 =