English Version

১৭ বছরের এক কিশোর আত্মহত্যা করেছে পাবজি খেলতে না দেয়ায়

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

ছবি অনলাইন

বিডিটুডেস ডেস্ক : পাবজি খেলার সময় মা হাত থেকে মোবাইল কেড়ে নিয়েছিল। পাবজি খেলতে না দেয়ায় আত্মহত্যা করেছে ১৭ বছরের এক কিশোর। সম্প্রতি ভারতের হরিয়ানায় এমন ঘটনা ঘটেছে।দশম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করে এক বছর ধরে ঘরেই শুয়ে-বসে সময় কাটাচ্ছিল ওই কিশোর। সারাটাদিন মূলত পাবজি খেলেই তার সময় কাটত। বর্তমানে পাবজি ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় মোবাইল গেম। এই গেমে একাধিক বন্ধুর সঙ্গে যুদ্ধক্ষেত্রে লড়াই করা যায়।

ওই কিশোরের বাবা একজন পুলিশ কর্মকর্তা। তিনি বলেন, ছেলেকে অনেক বুঝিয়েও পড়াশোনায় মন বসাতে পারেননি। সারাদিন সে পাবজি খেলত। গত শনিবার বিকালে তার মা ছেলের ঘরে ঢুকে দেখেন সে পাবজি খেলছে। তখনই তার হাত থেকে মোবাইল ফোন কেড়ে নেন তিনি।সে সময় তার বাবা ডিউটিতে ছিলেন। পরদিন সকালে ঘরে ঢুকে তিনি দেখেন তার ছেলে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলছে। সম্প্রতি ভারতে পাবজি লাইট জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। কম শক্তিশালী কম্পিউটারে খেলার জন্য এই গেম লঞ্চ করা হয়েছে।

হেলথ টিপস পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

ইতোমধ্যেই বিশ্বের একাধিক দেশে পাবজি লাইট খেলা গেলেও এতদিন ভারতে এই গেম খেলা যেত না। কিন্তু এখন ভারতে পাবজি লাইট সার্ভার চালুর কারণে সহজেই এই গেম খেলা যাচ্ছে। এই গেমে গ্রাফিক্স কার্ড ছাড়া কম্পিউটার বা ল্যাপটপ থেকেও পাবজি খেলা যাবে। বিডিটুডেস/আরএ/১০ জুলাই, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

3 × 4 =