English Version

৭টি বিশেষ উপকারিতা রয়েছে মাহে রমজানের ইতিকাফে

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

কে এস এম আরিফুল ইসলাম, মৌলভীবাজার: মাহে রমজানের শেষ দশক আগমন করলে রসুল (সা.) খুব বেশি ইবাদত-বন্দেগিতে লিপ্ত হয়ে পড়তেন। তাই পবিত্র মাহে রমজানে যেসব আমল দ্বারা বান্দা আল্লাহর নৈকট্যলাভে ধন্য হয়, তার মধ্যে রমজানের শেষ দশকের ইতেকাফ অন্যতম।

হযরত আয়েশা সিদ্দিকা (রা.) বলেন, ‘যখন রমজানের শেষ দশক আগমন করত রসুল (সা.) তাঁর কোমর বেঁধে নিতেন, রাত জাগতেন আর তাঁর পরিবারের সদস্যদেরও জাগাতেন।’ (ইবনে খুজাইমা) লাইলাতুল কদরপ্রাপ্তি, গুনাহ থেকে পরিত্রাণ, একাকী সংগোপনে মহান প্রভুর ইবাদত, আত্মিক উন্নতি সাধন, বাকি এগারো মাসের ইবাদতের অনুশীলনসহ অসংখ্য বরকতসমৃদ্ধ আমলের সমন্বয়ই হলো ইতেকাফ।

ইতেকাফ শব্দের আভিধানিক অর্থ অবস্থান করা বা কোনো স্থানে নিজেকে আবদ্ধ রাখা। আর ইসলামী শরিয়তের পরিভাষায় ইতেকাফ বলা হয়, আল্লাহতায়ালার সন্তুষ্টির জন্য এক বিশেষ সময় এবং বিশেষ নিয়মে নিজেকে মসজিদে আবদ্ধ রাখা। লায়লাতুল কদর অনুসন্ধান করার জন্য ইতেকাফ করা সুন্নত। ইতিকাফের বহুবিধ উপকারিতা রয়েছে। বিশেষ ৭টি উপকারিতা উল্লেখ করা হলো –

১, ইতিকাফকারী চব্বিশ ঘন্টাই মহান আল্লাহ তা’য়ালার যিকিরে থাকার সৌভাগ্য লাভ করেন।

২, ইতিকাফ অফুরন্ত সওয়াব ও লাইলাতুল কদর লাভের শ্রেষ্ঠ আমল।

৩, ইতিকাফের মাধ্যমে নিজেকে জাগতিক নানা ঝামেলা থেকে মুক্ত করে সম্পূর্ণরূপে আল্লাহর নিকট সঁপে দেয়া হয়।

৪, ইতিকাফের দ্বারা চব্বিশ ঘণ্টা ফেরেশতাসুলভ আচরণের উপর অবিচল থাকার চমৎকার প্রশিক্ষণ হয়।

৬, ইতিকাফ আল্লাহ তাআলার মেহমান হয়ে তাঁর সাথে প্রেম-ভালোবাসা সৃষ্টি করার অন্যতম মাধ্যম। মহান প্রভুর সাথে একান্ত সংলাপে ইতিকাফের বিকল্প হয় না।

৬, ইতিকাফের মাধ্যমে অসংখ্য গুনাহ থেকে পরিত্রাণ লাভ করা যায়। কেননা পাপাচারের সয়লাব থেকে মুক্ত থাকার জন্য আল্লাহ তাআলার ঘর যেন লৌহপ্রাচীর বেষ্টিত চির সংরক্ষিত এক মহা দূর্গ।

৭, রোযার যাবতীয় বিধি-নিষেধ ও হক যথাযথভাবে আদায় করে পরিপূর্ণ রোযা পালনের জন্য ইতিকাফ যথেষ্ট কার্যকর।

মহান রাব্বুল আলামিন আমাদের সবাইকে রমজানুল মোবারকের শেষ দশকে ইসলামী শরীয়া মোতাবেক ইতেকাফের পূর্ণ হক আদায় করার এবং সর্বদাই আল্লাহর পথে নিজেকে উৎসর্গ করার তৌফিক দিন।

কে এস এম আরিফুল ইসলাম
সাংবাদিক, কলামিস্ট ও সিনিয়র শিক্ষক
দারুল আজহার ইনস্টিটিউট
শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।

বিডিটুডেস/এএনবি/ ১৪ মে, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

14 − eleven =