English Version

“৭১ সালের যুদ্ধ শেষ হলেও আত্রাই-রাণীগরের মানুষ প্রতিনিয়ত ও প্রতিক্ষণ মুক্তিযুদ্ধ করেছেন”

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

জি এম মিঠন, নওগাঁ: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈম আল-মাহমুদ স্বপন বলেছেন, উগ্র মৌলবাদি শক্তি, দানব বাম মৌলবাদি শক্তি এবং দানব জামাত বিএনপি শক্তি এই তিনটি দানবীয় শক্তিকে দীর্ঘদিন ধরে আত্রাই-রাণীনগরের মানুষ প্রতিরোধ ও প্রতিহত করেছে এবং আপনাদের শ্রম, রক্তদান দেওয়ায় আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা সাথে স্মরণ করে।

বঙ্গবন্ধুর আমলে স্পেশাল ফোর্স পাঠিয়ে আত্রাই-রাণীনগরে অপারেশন করতে হয়েছিল। আত্রাই-রাণীনগরসহ পার্শবর্তী বাগমারা জনপদের মানুষ দির্ঘদিন যাবত মানুষ নিরাপত্তাহীন ছিল এবং যারা মুক্তিযোদ্ধের পক্ষে ছিলেন তারা অসহায় জীবন যাপন করেছেন। এরই মধ্যেই যারা আওয়ামী লীগ করেছেন বঙ্গবন্ধুকে ধারন করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ আছেন তাদেরকে শ্রদ্ধা জানাই।

এছাড়াও ৭১ সালের যুদ্ধ শেষ হলেও আত্রাই-রানীগরের মানুষ প্রতিনিয়ত ও প্রতিক্ষণ মুক্তিযুদ্ধ করেছেন। তিনি মঙ্গলবার দুপুরে নওগাঁয় জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে নওগাঁ-৬ আসনের উপ-নির্বাচন উপলক্ষে নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে এসব কথা বলেন। মঙ্গলবার দুপূরে নওগাঁ শহরের ঐহিত্যবাহী প্যারীমোহন সাধারণ গণগ্রস্থাগারের সামনে এই সভার আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল বলেন, যারা বঙ্গবন্ধুর খুনি, জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন, অস্থিত্ব নেই, যারা সবার প্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার জন্য ১৩টি গ্রেনেড নিক্ষেপ করেছিল এবং আইভি রহমানসহ ২৪ নেতাকর্মী মারা গেছে, যারা ক্ষমতায় থাকার পর এই উত্তাল জনপদে বাংলাভাইকে অস্ত্রসহ মিছিল করেছে, বিএনপি-জামায়াতের পৃষ্ঠপোষকতায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ঘরে থাকতে পারে নাই।

মা বোনের ইজ্জত নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছে। সেই বিএনপি যদি ভোটে জয় লাভ করে তাহলে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ও জনগণ শান্তিতে থাকতে পারবে না। বিএনপি- জামায়াতে জোটে জনগণের কোনো সমর্থন নেই। আর আমরা তাই বিএনপিকে কোন সুযোগ দিতে চায় না।

অনুষ্ঠানে খাদ্যমন্ত্রী ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, আওয়ামী লীগের মধ্যে প্রতিযোগীতা থাকবে কিন্তু সেটা প্রতিহিংসায় রুপ নিবে না। প্রার্থীদের নৌকার সাথে নৌকার কোন প্রতিযোগীতা হবে না। এখন প্রতিযোগীতা করবে আমাদের বিরোধী দলের প্রার্থীর সাথে। আর শেখ হাসিনার নৌকাকে ভরাডুবি হতে দিবে না বলেও জানান তিনি।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক সাংসদ আব্দুল মালেকের সভাপতিত্বে শহীদুজ্জামান সরকার এমপি, ছলিম উদ্দিন এমপি ও আত্রাই-রাণীনগরের আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রাথী আনোয়ার হোসেন হেলালসহ আত্রাই-রাণীনগরের আওয়ামী লীগের ৩৩ জন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা বক্তব্য রাখেন।

এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ও উপজেলা নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় ৩৩ জন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা সকল বিভেদ ভুলে গিয়ে শেখ হাসিনার নৌকার প্রার্থীকে বিপুল জয়লাভ করার অঙ্গীকার ব্যাক্ত করেন। বিডিটুডেস/এএনবি/ ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

seven + nineteen =